International

উপহার নিয়ে আসবে তো সান্তা, জানতে চেয়ে ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রীকে চিঠি লিখল খুদে

: অনেকেরই নিশ্চয়ই মনে পড়বে, বেশ কয়েকবছর আগে ছোট্ট একটি মেয়ে তার বাবার ‘বস’কে চিঠি লিখে অনুযোগ জানিয়েছিল, কেন তার বাবাকে ছুটি দেওয়া হয় না! সেই ঘটনা মুহূর্তে সোশ্যাল মিডিয়ায় ঝড় তুলেছিল। চিঠিটির সারল্য ও অভিনবত্ব ছুঁয়ে গিয়েছিল অনেককেই। 
প্রায় তেমনই একটি ঘটনা ঘটল ব্রিটেনে। ‘হ্যাজ দ্য গভর্মেন্ট থট অ্যাবাউট সান্তা ক্লজ’স ভিজিটস দিস ক্রিসমাস?’–এই প্রশ্নের মুখে পড়লেন স্বয়ং ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী। সামনেই বড়দিন। কিন্তু করোনা-পরিস্থিতিতে কি উৎসবের আবহ আগের মতো স্বাভাবিক থাকবে? এক শিশু এই প্রশ্নেরই উত্তর জানতে চেয়েছে ব্রিটেনের প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসনকে চিঠি লিখে।

আট বছরের সেই খুদের নাম মন্টি। সে তার খাতা থেকে পাতা ছিঁড়ে এই চিঠিটি লিখেছিল প্রধানমন্ত্রীকে। তার প্রশ্ন, এ বছর ‘ফাদার ক্রিসমাস’ উপহার নিয়ে আসবেন কি না! শুধু তাই নয়, দেখা গিয়েছে, করোনা নিয়েও সচেতন সেই শিশু। সে আর্জি জানিয়েছে, ফাদার ক্রিসমাস যেন কুকিজের সঙ্গে সকলকে হ্যান্ড স্যানিটাইজারও দেন। 
১০, ডাউনিং স্ট্রিটে পৌঁছনোর সঙ্গে সঙ্গেই চিঠিটির উত্তর দিয়েছেন বরিস। লিখেছেন, ‘তোমার এই প্রশ্ন হাজার হাজার শিশুর মনে ঘুরছে। তাই আমি একটুও দেরি না-করে উত্তর মেরুতে ফোন করেছিলাম। ফাদার ক্রিসমাস আসছেন। সঙ্গে আনছেন রুডলফ এবং অন্য সব বল্গা হরিণ।’ বরিস মন্টিকে আশ্বস্ত করে আরও লিখেছেন, চিফ মেডিক্যাল অফিসার জানিয়েছেন, তুমি ও ফাদার ক্রিসমাস নিয়ম মেনে চললে কারওরই ভয়ের কোনও কারণ থাকবে না।
টুইটারে মন্টির হাতেলেখা সেই চিঠি ও নিজের উত্তর পোস্ট করেছেন বরিস।
আরও পড়ুন: শর্তসাপেক্ষে হোয়াইট হাউস ছাড়বেন ট্রাম্প

Back to top button