Life Style

এই করোনা-কালে নিজের একটা লাইব্রেরি থাকলে কেমন হয়?

: ঘরের কোণে একচিলতে  নিজস্ব লাইব্রেরি হলে মনটা ভাল হয়ে যায়। আর করোনার সময়ে বই-ই বড় সঙ্গী হতে পারে।
শহুরে জীবনে পরিসর ছোট, কমে আসছে জায়গা। তাই স্টাডি ইউনিট বা পড়ার ঘর আলাদা করে প্রায়ই থাকে না। তবু যদি বাড়িতে বা ফ্ল্যাটে ছোট একটা ঘর বা স্পেস বের করা যায় তবে সেটাকে লাইব্রেরিতে (library) রূপরান্তরিত করে নেওয়া চলে। তার মধ্যে পড়াশোনার (study) জন্য খানিকটা জায়গা থাকবে। যাঁদের অনেক বই, তাঁরা ফুলহাইট ক্যাবিনেটের মতো স্টোর করে বই রাখবেন। আর বুকশেলফে হাতের নাগালে রাখেন সেসব বই, যেগুলো নিয়মিত পড়ার প্রয়োজন হয়। কেউ কেউ লবিতেও বই রাখে। আর শোবার বা বসার ঘরের বই রাখার ব্যবস্থাও করাই যায়। খাটের মাথায় শেলফ করে কিছু বই স্টোর করা যায়।

আরও পড়ুন: যৌন জীবন স্বাস্থ্যকর করতে খান জিরা, হিং, সজনে ডাঁটা
নিজস্ব লাইব্রেরিতে আলোর ব্যাপারে বাড়তি সচেতন হতে হবে। লাইব্রেরিতে দিনের আলো আসার সুযোগ থাকলে ভালো। না হলে কৃত্রিম আলোর ব্যবস্থা করতে হবে। এ ক্ষেত্রে বই (book) পড়ার সময়ে উজ্জ্বল আলো আর না পড়ে শুধু চিন্তাভবানা করার সময়ে হালকা আলো ব্যবহার করা যায়। বই পড়ার টেবিল ল্যাম্পের তো ব্যবস্থা করাই যেতে পারে।

 লাইব্রেরির তাকে বই রাখাটাই শেষ কথা নয়, পড়ার পাশাপাশি খানিকটা সময় বরাদ্দ রাখতে হবে বইয়ের যত্ন-আত্তিতেও। নিজস্ব লাইব্রেরি ঠিকঠাক রাখার জন্য জরুরি হল পরিচ্ছন্নতা (cleanliness)।
আরও পড়ুন: এই কোভিড-টু’তে ঘরে বেশি করে ডিম মজুত করুন আর বানিয়ে নিন বিচিত্র এগ-ডিশ
 
 

Back to top button