Doctor Tips

করোনার সেকেন্ড ওয়েভে ভরসা সূর্যালোক! কেন এমনটা বলছেন বিশেষজ্ঞরা?

: করোনার দ্বিতীয় ঢেউ সামাল দিতে যখন হিমশিম খাচ্ছে দেশ তখনই গবেষকদের হাতে উঠে এল চাঞ্চল্যকর তথ্য। সামান্য পরিমাণ সূর্যালোকই কমাতে পারে কোভিডের মৃত্যুহার। সম্প্রতি এক গবেষণায় জানা গিয়েছে, সূর্যের আলো বেশি পায় বিশেষত UVA রশ্মি বেশি আসে এমন দেশগুলিতে কোভিডে মৃত্যুর সংখ্যা অনেকখানি কম। 
আরও পড়ুন: কিডনিতে ছোট ছোট পাথর? তুলসি গাছেই হতে পারে কামাল

এডিনবার্গ বিশ্ববিদ্যালয়ের (University of Edinburgh) একদল গবেষক আমেরিকা মহাদেশের বিভিন্ন দেশে ২০২০ এর জানুয়ারি থেকে এপ্রিল পর্যন্ত কোভিডে মোট মৃত্যু নিয়ে একটি সমীক্ষা চালায়। সমীক্ষায় দেখা গিয়েছে, যে সমস্ত অঞ্চলে সূর্যালোকে ৯৫ শতাংশের বেশি UVA Ray পাওয়া যায় সেখানে অন্যান্য অঞ্চলের তুলনায় কোভিডে মৃত্যুহার কম। সমীক্ষায় অবশ্য বয়স, আর্থ-সামাজিক মর্যাদা, জনঘনত্ব, বায়ুদূষণ, সংক্রমণের হার ইত্যাদি বিষয়কে ফ্যাক্টর হিসেবে ধরা হয়। 
আরও পড়ুন: চল্লিশ পেরোলে সুগারের হাত থেকে বাঁচতে মাটির নিচের যে যে সবজি খাবেন
গবেষকদের দাবি, দেহে বেশি পরিমাণ ভিটামিন ডি থাকলেই যে করোনায় মৃত্যুর আশঙ্কা কম এমনটা নয়। কিন্তু সূর্যালোকের সঙ্গে বা তাহলে করোনার সম্পর্ক কী? গবেষকদের দাবি, আমাদের দেহে সূর্যালোক প্রবেশ করলে ত্বক থেকে নাইট্রিক অক্সাইড নির্গত হয় যা কোভিড-১৯ (Covid19) এর মাদার ভাইরাস সার্স করোনাভাইরাস২ কে রুখতে সফল হয়। ঐ একই গবেষক দলের আগের একটি সমীক্ষায় যে তথ্য উঠে এসেছে যে অধিক পরিমাণ সূর্যালোক দেহে প্রবেশের ফলে উচ্চ রক্তচাপ কমার পাশাপাশি হার্ট অ্যাটাকের প্রবণতাও কমে। কোভিডের ঝুঁকি এড়াতে কি তবে শেষ পর্যন্ত রোদ পোহানোর পরামর্শই দেবেন বিশেষজ্ঞরা? যদিও পরীক্ষামূলক গবেষণা চলাকালীন এখনই এ বিষয়ে মত প্রতিষ্ঠা করেননি তাঁরা।

Back to top button