International

করোনায় মৃত্যু মিছিলের মধ্যেই গুরুদ্বারায় প্রবল আত্মঘাতী বিস্ফোরণ ঘটাল জঙ্গিরা

কাবুল: করোনা আতঙ্কে গোটা বিশ্বে। মহামারীর আকার নিচ্ছে ক্রমশ। এই পরিস্থিতিতে আত্মঘাতী হামলা। কাবুলের একটি গুরুদ্বারাতে ভয়ঙ্কর হামলা চালাল জঙ্গিরা। বুধবার সকালে ভয়াবহ এই আত্মঘাতী বিস্ফোরণটি ঘটে। এই ঘটনায় এখনও পর্যন্ত ১১ জনের মৃত্যু হয়েছে বলে খবর।
আফগানিস্তানের শোর বাজার এলাকার একটি গুরুদ্বারায় এই হামলা চালানো হয় বলে জানা যাচ্ছে। এখনও পর্যন্ত কোনও জঙ্গি সংগঠন এই ঘটনার সঙ্গে জড়িত তা এখনও জানা যায়নি। তবে ভয়াবহ এই আত্মঘাতী বিস্ফোরণের পরেই তালিবানের তরফে একটি বিবৃতি দেওয়া হয়েছে। বিবৃতিতে বলা হয়েছে,হামলার পিছনে তাদের হাত নেই। তবে এই ঘটনার পিছনে ইসলামিক স্টেটের জঙ্গিদের হাত থাকতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে। কারণ মাঝে মধ্যেই সে দেশে সংখ্যালঘু শিখদের উপর হামলার ঘটনা ঘটায় আইএস জঙ্গিরা।
জানা গিয়েছে, যে এলাকায় এই আত্মঘাতী এই বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটেছে সেখানে হিন্দু এবং শিখ জনসংখ্যা অনেক বেশি। এই ঘটনার পরেই আফগানিস্তানের অভ্যন্তরীণ মন্ত্রকের মুখপাত্র তারিক আরিয়ান জানিয়েছেন, স্থানীয় সময় অনুযায়ী সকাল ৭টা ৪৫ মিনিট একদল জঙ্গি হঠাত করেই গুরুদ্বারায় ঢুকে পড়ে। মন্ত্রকের তরফে জানানো হয়েছে, খবর পেয়ে দ্রুত ঘটনাস্থলে যায় পুলিশ। কিন্তু সেখানে পুলিশ পৌঁছানোর আগেই জঙ্গিরা আত্মঘাতী বিস্ফোরণ ঘটায়। বিস্ফোরণের তীব্রতা এতটাই বেশি ছিল যে অনেক দূর পর্যন্ত শোনা যায়। এমনকি কালো ধোঁয়া বহু দূর থেকে দেখা যায়।

স্থানীয় সংবাদমাধ্যম জানাচ্ছে, এই ঘটনায় কমপক্ষে ১১ জনের মৃত্যু হয়েছে। আহত হয়েছেন আরও ১১ জন। তবে ঘটনার পর পুরো গুড়দ্বারা ঘিরে ফেলে স্থানীয় পুলিশ আধিকারিকরা। কারণ আত্মঘাতী বিস্ফোরণের পর সেখানে আরও বেশ কয়েকজন জঙ্গি লুকিয়ে ছিল। তাঁদের সঙ্গে এখন পুলিশের গুলির লড়াই চলছে।
ঘটনাকে কেন্দ্র করে ব্যাপক চাঞ্চল্য তৈরি হয়েছে। বিস্ফোরণের পর গোটা এলাকা কড়া নিরাপত্তায় মুড়ে ফেলা হয়েছে। বিভিন্ন জায়গায় পুলিশ পিকেটিং করা হয়েছে। স্থানীয় দূতাবাসগুলির নিরাপত্তাও বাড়ানো হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close