Bangladesh

কারফিউর বিরুদ্ধে নেদারল্যান্ডসে বিক্ষোভ, আগুন

আন্তর্জাতিক : করোনা রুখতে রাতে কারফিউ জারি করা হয়েছে নেদারল্যান্ডসে। তারই প্রতিবাদে বিক্ষোভ। পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষ। গ্রেপ্তার বহু। খবর ডয়চে ভেলে’র।

দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পর নেদারল্যান্ডসে আবার রাতে কারফিউ জারি করা হলো। আর সেই সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে রাস্তায় নেমে প্রতিবাদও শুরু। আমস্টারডাম সহ তিনটি শহরে বিক্ষোভে সামিল হয়েছিলেন করোনার কড়াকড়ির বিরুদ্ধে থাকা মানুষ। পুলিশের সঙ্গে তাঁদের সংঘর্ষ শুরু হয়। প্রচুর বিক্ষোভকারী গ্রেপ্তার হয়েছেন।

রোববার বিক্ষোভ প্রথমে শুরু হয় আমস্টারডামের উত্তর-পশ্চিমের শহর উরক থেকে। সেখানে একদল তরুণ একটি ভাইরাল টেস্টিং সেন্টার ভাঙচুর করে, আগুন ধরায়। তার কয়েক ঘণ্টা পরেই আমস্টারডামে বিক্ষোভ ছড়ায়। পুলিশ বিক্ষোভ থামাতে কাঁদানে গ্যাসের শেল ফাটায়, লাঠি চালায়। ঘোড়সওয়ার পুলিশ ঘটনাস্থলে আসে। কুকুর নিয়েও পুলিশকে দেখা যায়। আইন্ডহোভেন স্টেশনের বাইরে বিক্ষোভকারীরা গাড়ি পুড়িয়ে দেয় ও ভাঙচুর করে।

আমস্টারডামের সেন্ট্রাল মিউজিয়াম স্কোয়্যারে কয়েকশ বিক্ষোভকারী জমায়েত হন। অথচ, করোনা রুখতে দুইজনের বেশি কোনো জমায়েত নিষিদ্ধ। মিউজিয়াম স্কোয়্যারকেও হাই রিস্ক জোন হিসাবে চিহ্নিত করে সেখানে যে কোনো মানুষকে তল্লাশি করার অধিকার পুলিশকে দেয়া হয়েছে।

দেশজুড়ে পুলিশ একশর বেশি মানুষকে গ্রেপ্তার করেছে। তিন হাজার ৬০০ জনকে জরিমানা করা হয়েছে। কারফিউ ভাঙলে ৯৫ ইউরো জরিমানা করা হচ্ছে।

শনিবার রাতে উরকে একদন তরুণ একটি পরীক্ষাকেন্দ্রে আগুন ধরিয়ে দেয়। পুলিশকে লক্ষ্য করে তারা পাথর ছোড়ে। রিপোর্টারদের লক্ষ্য করে গোলমরিচের গুড়ো স্প্রে করা হয়। পুরসভার তরফ থেকে জানানো হয়েছে, স্থানীয় মানুষের একাংশের এই ধরনের ব্যবহার মেনে নেয়া যায় না। স্বাস্থ্যকর্মীরা যথাসাধ্য করছেন। আর তাঁরাই আক্রান্ত হয়েছেন। কর্তৃপক্ষ জানিয়েছেন, কারফিউ কড়াভাবে রূপায়ণ করা হবে।

সূত্রঃ zoombangla

Back to top button