Economy

গত ৪৪ মাসে সবচেয়ে নিচে পুঁজিবাজারের সূচক

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট ঢাকা: থামছে না পুঁজিবাজারে সূচকের পতন। মঙ্গলবার (৭ জানুয়ারি) টানা তৃতীয় দিনের মতো সূচকের বড় পতন দিয়ে শেষ হয়েছে লেনদেন। বিজ্ঞাপন গত তিন দিনে দেশের প্রধান পুঁজিবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) সূচক হারিয়েছে ১৭৮ পয়েন্ট। আজ লেনদেন শেষে ডিএসই‘র প্রধান সূচক আগের দিনের চেয়ে ৫০ পয়েন্ট কমে ৪ হাজার ২৮১ পয়েন্টে নেমে আসে। এটি ছিল গত ৪৪ মাসে সূচকের সর্বনিম্ন অবস্থান। এর আগে ২০১৬ সালের ১৫ মে ডিএসই’র সূচক ছিল ৪ হাজার ২৭৫ পয়েন্ট। টানা দরপতনের পেছনে সবচেয়ে বড় কারণ মনে করা হচ্ছে, গত ২ জানুয়ারি (বৃহস্পতিবার) অর্থমন্ত্রীর সঙ্গে পুঁজিবাজারের স্টেকহোল্ডাররা বৈঠকে বসেন। সে সময় পুঁজিবাজারের জন্য অর্থমন্ত্রী ইতিবাচক নতুন কোনো পদক্ষেপ ঘোষণা করেননি। বিনিয়োগকারীদের প্রত্যাশা ছিল এদিন পুঁজিবাজারের দরপতন রোধে অর্থমন্ত্রী নতুন কোনো পদক্ষেপের কথা জানাবেন। ডিএসইতে সূচকের পাশাপাশি কমেছে আর্থিক ও শেয়ার লেনদেন। দিন শেষে ডিএসইতে আর্থিক লেনদেনের পরিমাণ দাঁড়িয়েছে ৩২৭ কোটি ৪৬ লাখ টাকা। এদিন ৩৫৫টি কোম্পানির ১১ কোটি ২১ লাখ ১৭ হাজার ৬৩৩টি শেয়ার ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের লেনদেন হয়। এর মধ্যে শেয়ার ও ইউনিটের দাম বেড়েছে মাত্র ৪২টির। কমেছে ২৬৯টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ৪৩টির দাম। ব্রড ইনডেক্স আগের কার্যদিবসের চেয়ে ৫০ পয়েন্ট কমে ৪ হাজার ২৮১ পয়েন্টে নেমে আসে। এদিন ডিএসই শরিয়াহ সূচক ১০ পয়েন্ট কমে ৯৭২ পয়েন্ট, ডিএসইএ-৩০ সূচক ১৫ পয়েন্ট বেড়ে ১ হাজার ৪৩৬ পয়েন্টে অবস্থান করছে। চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) এদিন ২৪৮টি কোম্পানির ৬১ লাখ ৪৭ হাজার ১৪টি শেয়ার ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের লেনদেন হয়েছে। এর মধ্যে দাম বেড়েছে মাত্র ৪১টির। কমেছে ১৮৬ টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ২১টি কোম্পানির শেয়ারের দাম। দিনশেষে সিএসইতে ৬১ লাখ ৪৭ হাজার ৩৮টি শেয়ার ও ইউনিট কেনাবেচা হয়েছে। মঙ্গলবার সিএসই’র প্রধান সূচক আগের দিনের চেয়ে ২৩ পয়েন্ট কমে ১৩ হাজার ১০ পয়েন্ট নেমে আসে। বিজ্ঞাপন সারাবাংলা/জিএস/এটি
সূত্রঃ সারাবাংলা

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close