আন্তর্জাতিক

চিনের জাতীয় দিবসে হংকং-এ অশান্তি – আগাম বার্তা

হংকং:চিনের কমিউনিস্ট শাসনের ৭০তম বর্ষপূর্তির দিনে বড়সড় অশান্তি দেখা গেল হংকং-এ৷ এমনটা আশংকা করা হয়েছিল এবং সেটাই বাস্তবে ঘটল৷ সেখানে আপাত শান্ত প্রতিবাদ মিছিল হিংসাত্মক সংঘর্ষে পরিণত হল। গত চার মাসে এত বিরোধিতা সত্ত্বেও যা ঘটেনি, সেটি-ই ঘটল এই দিনে। পুলিশ সূত্রে খবর, এ দিন বিক্ষোভকারীদের নিয়ন্ত্রণ করতে আগ্নেয়াস্ত্র ব্যবহার করা হয় এবং তারই জেরে গুলি বুকে লাগায় জখম এক বিক্ষোভকারীরা। হংকংয়ের হাসপাতালের হিসেব বলছে, এই সংঘর্ষে সব মিলিয়ে আহতের সংখ্যা ১৫।

গত চার মাস ধরে বিক্ষোভের জেরে আগেও একাধিক বার হিংসাত্মক হতে দেখা গিয়েছে প্রশাসনকে। ফলে প্রশাসনের বিরুদ্ধে কখনও কাঁদানে গ্যাস, কখনও বা রবার বুলেট ব্যবহার করার অভিযোগ উঠেছে। তখন অনেকে গুরুতর জখমও হয়েছেন৷ কিন্তু এত দিন আগ্নেয়াস্ত্রের ব্যবহার মূলত বিক্ষোভকারীদের সতর্ক করতেই ব্যবহার করা হয়েছে । এ দিন হংকংয়ের সুয়েন ওয়্যান জেলায় এক বিক্ষোভকারীর আহত হওয়ার খবর ছড়িয়ে পড়ে৷ সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে যায় সেই ছবি রাস্তায় শুয়ে গোঙাচ্ছেন এক আহত। তখন রক্তে ভিজে যাচ্ছে তাঁর শরীর। তখন তাঁর কাতরোক্তি, দয়া করে হাসপাতালে পাঠানোর ব্যবস্থা করুন৷

হং কং-এর মানুষ চিনের কমিউনিস্ট শাসনের ৭০তম বর্ষপূর্তিকে উৎসবের দিন হিসেবে পালন করতে চায়নি৷ বরং এটিকে শোকের দিন রূপে দেখছে তারা। তাই চিনের জাতীয় দিবস-এ স্মরণ করার বদলে পুলিশি নিষেধাজ্ঞা অমান্য করতে সেন্ট্রাল হংকংয়ে জমায়েত করেন হাজার হাজার মানুষ। তাছাড়া শহরের বাকি অংশেও ভিড় করেন বহু মানুষ। পুলিশ প্রথমে ছোট মিছিলগুলির উপর বল প্রয়োগ করে। পরে সেন্ট্রাল হংকংয়ের মিছিলে হিংসাত্মক পথ নেওয়া হয়। প্রথম পুলিশ কাদাঁনে গ্যাস ও জলকামান ছুঁড়লে বিক্ষোভকারীরা পাল্টা জবাবে মলোটভ ককটেল ছোড়েন এবং ব্যারিকেডে আগুন ধরিয়ে দেওয়া হলে আগ্নেয়াস্ত্র ব্যবহার করে পুলিশ।

Leave a Reply

Back to top button
Close