আন্তর্জাতিক

চীন-আমেরিকা বাণিজ্য যুদ্ধ

আগাম বার্তা: চীনের সাথে বাণিজ্য চুক্তিতে এখনো প্রস্তুত নয় মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র।

গতকাল রোববার এমন তথ্য জানিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডনাল্ড ট্রাম্প। এ সিদ্ধান্তের কারণে দেশটির অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি হ্রাস পাওয়ার কোনো আশঙ্কা নেই বলে মনে করছেন হোয়াট হাউসের শীর্ষ কর্মকর্তারা। তবে দুইদেশের এই বাণিজ্য যুদ্ধের নেতিবাচক প্রভাব পড়েছে জাপানের রপ্তানিতে।

গেল বছর থেকেই শুরু হয় মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ও চীনের বাণিজ্য যুদ্ধ। বেশ কিছুদিন চলে দুদেশের পাল্টাপাল্টি শুল্ক আরোপ।

জি টোয়েন্টি সম্মেলনে আলোচনার পর বরফ গলতে শুরু করলেও ইতিবাচক সিদ্ধান্তে পৌঁছাতে পারেনি দুদেশের বাণিজ্য যুদ্ধ।

গেল রোববার মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডনাল্ড ট্রাম্প জানান, যুক্তরাষ্ট্রে বর্তমানে অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধির ধারা ইতিবাচক। সুতরাং চীনের সাথে বাণিজ্য যুদ্ধের পাশাপাশি বিশ্ব বাজারে অস্থিরতা চললেও তা দেশটির অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধিকে বাধাগ্রস্ত করবেনা বলে মনে করেন ট্রাম্প।

তিনি আরো জানান, চীন চুক্তির জন্য প্রস্তুত থাকলেও, এখনো কোনো রকম বাণিজ্য চুক্তিতে প্রস্তুত নয় যুক্তরাষ্ট্র।

চলমান বিক্ষোভে হংকংয়ের প্রশংসা করে ট্রাম্প জানান, হংকং বিক্ষোভ নিরসনে কাজ করছে যা বাণিজ্য চুক্তির জন্য ইতিবাচক।

হুওয়াওয়ের সাথে সমস্যা সমাধানের কথা থাকলেও এখন প্রতিষ্ঠানটির সাথে ব্যবসা করতে আগ্রহী নয় যুক্তরাষ্ট্র।

নিজের দেশের নিরাপত্তার কারণেই এমন সিদ্ধান্ত দাবি প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের। তবে যুক্তরাষ্ট্রে হুওয়াওয়ের লাইসেন্সের মেয়াদ ৯০ দিন বাড়ানো হতে পারে বলছে হোয়াইট হাউজ।

দু দেশের বাণিজ্য যুদ্ধের নেতিবাচক প্রভাব পড়তে শুরু করেছে জাপানের রপ্তানিতে। গেলে বছরের জুলাইয়ের চেয়ে এ বছরের জুলাইয়ে রপ্তানি কমেছে দেড় শতাংশের বেশি।

গাড়ির যন্ত্রাংশসহ বেশ কিছু উৎপাদিত পণ্য চীনে কম রপ্তানি হওয়াই এর কারণ বলছে দেশটির অর্থমন্ত্রণালয়। এতে জাপানে অর্থনৈতিক মন্দার আশঙ্কা করছেন দেশটির অর্থনীতিবিদরা।

-এটি

বিষয়ঃ

Leave a Reply

Back to top button
Close