আন্তর্জাতিক

দাউ দাউ করে জ্বলছে গোটা এলাকা, মায়া ত্যাগ করে ছুটছেন বাঁচার আশায় – আগাম বার্তা

লিসবন:  দাউ দাউ করে জ্বলছে পর্তুগালের পাহাড়ি এলাকা। এক জায়গা থেকে অন্য জায়গায় ক্রমশ ছড়িয়ে পড়ছে দাবানলের আগুন। প্রাণ বাঁচাতে বাড়ি ঘর ছেড়ে পালাচ্ছে সাধারণ মানুষ। এই অবস্থায় ভয়ঙ্কর এই দাবানল নেভানোর কাজ করছে স্থানীয় দমকল। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে প্রায় ১ হাজারেও বেশি দমকলকর্মীকে নামানো হয়েছে।

কিন্তু যেভাবে দাবানলের আগুন এক জায়গা থেকে অন্য জায়গায় ছড়িয়ে পড়ছে তাতে রীতিমত আগুন নেভাতে বেগ পেতে হচ্ছে দমকল কর্মীকে। আগুন নেভাতে গিয়ে এখনও পর্যন্ত ৭ দমকলকর্মী গুরুতর আহত হয়েছেন। আর দাবানলের মধ্যে পড়ে একজন সাধারণ মানুষ গুরুতর আহত হয়েছেন বলে জানা যাচ্ছে।

বিবিসি জানাচ্ছে, ক্যাস্তেলো ব্রনকো অঞ্চলের পাহাড়ে অন্তত তিনটি দাবানল জ্বলছে। ওই এলাকায় একটি গ্রামের সব মানুষকে ইতিমধ্যে নিরাপদ আশ্রয়ে সরিয়ে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। যদিও কেউ আটকে পড়ে রয়েছেন কিনা তা জানার জন্যে হেলিকপ্টারের সাহায্য তল্লাশি চালানো হচ্ছে। বিবিসি জানাচ্ছে, শনিবার বিকেলে হঠাত করেই ওই জঙ্গলে আগুন লেগে যায়। এরপর ঝড়ো হাওয়াতে তা দ্রুত ছড়িয়ে পড়ে দাবানলে রূপ নেয়।

প্রবল হাওয়ার কারণে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনা রীতিমত কঠিন হয়ে পড়ে দমকল কর্মীদের কাছে। চারটি বুলডোজারসহ শতাধিক দমকলের ইঞ্জিন এই আগুন নিয়ন্ত্রণে আনার কাজ করছে। আগুন নেভানোর কাজে সাহায্যের হাত বাড়িয়েছে সেনাও। হেলিকপ্টার এবং ছোট বিমানের সাহায্যে আকাশ থেকে এই জল ফেলা হচ্ছে।

অন্যদিকে, ভয়ঙ্কর এই দাবানলের কারণে গুরুত্বপূর্ণ অনেক রাস্তাতেই যান চলাচল বন্ধ হয়ে গিয়েছে।

আজ রবিবার ক্যাস্ত্রেলো ব্রনকো অঞ্চলে গড় তাপমাত্রা ছিল ৩১ ডিগ্রি সেলসিয়াস। দেশের মধ্য ও দক্ষিণের আরও ছটি অঞ্চলে তাপমাত্র বৃদ্ধির কারণে দাবানলের সর্বোচ্চ সতর্কতা জারি করেছে স্থানীয় আবহাওয়া দফতর। বিশেষ করে পর্তুগালের উষ্ণ আবহাওয়া, ঘন জঙ্গল এবং আটলান্টিক মহাসাগর থেকে উঠে আসা ঝড়ো বাতাসের কারণে প্রায়ই দাবানলের সৃষ্টি হয়। উল্লেখ্য, ২০১৭ সালে পর্তুগালে ভয়াবহ দাবানলের কারণে বহু মানুষ প্রাণ হারিয়েছিল।

Leave a Reply

Back to top button
Close