Doctor Tips

দীর্ঘস্থায়ী ব্যথা আনতে পারে আলস্য

নতুন এক গবেষণায় দেখা গেছে দীর্ঘস্থায়ী ব্যথার জন্য মস্তিষ্ক ক্লান্ত হয়ে পড়ে ও এর গতিবিধি শিথিল হয়ে পড়ে৷ ক্যালিফোর্নিয়ার স্ট্যানফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের পোস্টডক্টরাল রিসার্চের গবেষক ও এই গবেষণাটির মূখ্য গবেষক নেইল স্কওয়ারর্টজ জানিয়েছেন, ‘তীব্র ব্যথা প্রযোজনীয় কারণ এটির পরিমান বা এটি যাওয়া মানুষকে ফের কোন আঘাতের সঙ্গে যুদ্ধ করতে, সেটি সারাতে সাহায্য করে৷’ ইদুঁরের উপর গবেষণা করেই গবেষকরা এই কথা জানিয়েছেন৷
এই গবেষণায়, স্কওয়ারর্টজ ও তার সহকর্মীরা ইঁদুরকে তিনটি ভাগে ভাগ করেন৷ একটি ভাগের ইঁদুরের স্নায়ুগত সমস্যা ছিল, দ্বিতীয় ভাগে ইঁদুরের প্রদাহ জনিত সমস্যা ছিল ও তৃতীয় ভাগ ইঁদুর একেবারে অক্ষত ছিল৷ গবেষণায় দেখা যায়, আহত ইঁদুরেরা প্রথমবার সুস্থ হয়ে ওঠার পর পরবর্তী অসুস্থতার সময় তাদের ব্যথায় অনেকবেশি সহ্যশীল হয়ে উঠেছে৷ কিন্তু অনেকক্ষেত্রে ব্যথার ফলে তারা অনেক বেশি অলস হয়ে পড়েছে৷ এক্ষেত্রে ব্যথা কমানোর ওষুধ তাদের ক্ষেত্রে কাজ দিচ্ছে না৷

গবেষকেরা দেখেছেন, নিউক্লিয়াস অ্যাকাম্বেন্স বা মস্তিষের যে অংশ ব্যথা ও নড়াচড়ার জন্য তৈরি সে অংশের স্নায়ু সঠিক ভাবে কাজ করছে না৷ দেখা গেছে গালানিন নামের একধরনের সংকেতবহনকারী ক্যামিকেল মস্কিষ্কের স্নায়ুকে পরিবর্তিত করে শরীরের গতিবিধি কমিয়ে দেয়৷ গবেষকেরা যখন নিউক্লিয়াস অ্যাকাম্বেন্সে গালানিনের ক্ষরণ বন্ধ করে দেন তখন মস্তিষ্ক স্বাভাবিক গতিবিধিতে ফিরে আসে ও শারীরিক গতিবিধি ফের স্বাভাবিক হয়ে ওঠে৷ বিজ্ঞানের একটি প্রকাশনায় সম্প্রতি এই গবেষণাটি প্রকাশিত হয়েছে৷

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close