International

নিরাপত্তা আইন পাসে চিন বিরোধী মনোভাব, হংকংয়ে অপারেশন বন্ধ করল TikTok

ফাইল ছবি

হংকং সিটি: করোনা ভাইরাস থেকে ভারত-চিন সীমান্ত সংঘাত, সবকিছুর প্রভাব পরেছে গোটা বিশ্বে। চিনের বিরুদ্ধে বিরুপ মনোভাব প্রকাশ করছে অনেকেই। কিন্তু এরইমাঝে হংকংয়ে চিনবিরোধী মনোভাব দেখে হঠাতই হংকংয়ে অপারেশন বন্ধ করেছে চিনা ভিডিও-স্নিপেট শেয়ারিং অ্যাপ টিকটক।
জানা গিয়েছে, সোমবার শেষ রাতের দিকে কোম্পানির তরফে হংকংয়ে কাজ না করার বিষয়টি পরিষ্কার করা হয়েছে। সূত্রের খবর, সম্প্রতি হংকংয়ে নিরাপত্তা আইন পাশ করেছে চিন যা নিয়ে সমালোচনার ঝড় উঠেছে দেশ-বিদেশ এবং সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্মে।
সূত্রের খবর, হংকং সরকার অথবা পুলিশ ফোরসের তরফে ফেসবুক, গুগল এবং ট্যুইটারকে দেশের ইউসারদের তথ্য শেয়ার না করার অনুরোধ জানানোর পরেই এমন পদক্ষেপ নিয়েছে চিনা কোম্পানি বাইট ডান্সের টিকটক, এমনটাই জানা গিয়েছে।
সংবাদসংস্থা এএফপিকে টিকটক জানিয়েছে, “সাম্প্রতিক সময়ের ঘটনাক্রমকে সামনে রেখে আমরা হংকংয়ে টিকটকের অপারেশন বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছি”।
যদিও টিকটক দাবি জানিয়েছে, চিনের সঙ্গে কোনও তথ্য ভাগ করে নিতেই সহমত পোষণ করেনি চিন এবং কিছুটা অকারণে জোর গলায় জানানর চেষ্টা করেছে যে এমন অনুরোধে সম্মতি দেয়নি চিন।

হংকংয়ে চিনা অ্যাপ টিকটক অপারেশন বন্ধ করতে দু’দিন সময় নিয়েছে। সাম্প্রতিক সময়ের সেনশেশন টিকটক যেখানে ১৫-৬০ সেকেন্ডের ভিডিও ক্লিপস শেয়ার করা হয়। হেয়ার ডাই টিউটোরিয়াল থেকে ডান্স রুটিন সবকিছুতেই জায়গা করেছে টিকটক।

আইনটি পাস হওয়ায় চিন এবার তার আধা স্বায়ত্তশাসিত অঞ্চলটির ওপর নতুন ক্ষমতা আরোপ করল। যদিও এই আইনকে হংকংয়ের বিশেষ স্বায়ত্তশাসন ও স্বাধীনতার জন্য হুমকি হিসেবে বর্ণনা করে আসছেন‌ এই অঞ্চলটির কথিত গণতন্ত্রপন্থীরা। প্রসঙ্গত, ১৯৯৭ সালে ব্রিটিশ উপনিবেশ থেকে চিনের অধীনে এসেছিল হংকং। তখন থেকে হংকং ‘এক দেশ, দুই নীতি’ পদ্ধতির আওতায় স্বায়ত্তশাসনের মর্যাদা ভোগ করে আসছিল।
হংকংয়ে বিচ্ছিন্নতাবাদ, বৈধ সরকার পতনে অন্তর্ঘাতমূলক কার্যক্রম, সন্ত্রাসবাদ ও বিদেশি হস্তক্ষেপ রুখতেই নতুন এই নিরাপত্তা আইন আনা হয়েছে। আইনটি আদৌ হংকংয়ের স্বায়ত্তশাসনের জন্য হুমকি নয় বলেও দাবি জানিয়েছে চিন।
যদিও হংকংয়ের গণতন্ত্রপন্থীদের দাবি, এই আইন অঞ্চলটির রাজনৈতিক স্বাধীনতা খর্ব করবে। পশ্চিমারাও আশঙ্কা করছে, হংকং এতদিন ধরে যে বিশেষ মর্যাদা পেয়ে আসছে, নতুন নিরাপত্তা আইনের কারণে সেটা আর পাবে না। সুদূরপ্রসারী প্রভাব পড়বে হংকংয়ে।

Proshno Onek II First Episode II Kolorob TV

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close