আন্তর্জাতিক

পত্রিকায় ব্যক্তিগত চিঠি প্রকাশ করায় ব্রিটিশ রাজপরিবারের মামলা

ব্রিটেনের ট্যাবলয়েড পত্রিকা ‘মেইল অন সানডে’র বিরুদ্ধে মামলা করেছেন ব্রিটিশ রাজপরিবারের পুত্রবধূ মেগান মার্কেল। বাবাকে উদ্দেশ্য করে মেগানের হাতে লেখা ব্যক্তিগত চিঠিটি প্রকাশ করায় পত্রিকাটির বিরুদ্ধে মামলা করেন তিনি। এদিকে, ‘মেইল অন সানডে’র পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, তারা এ মামলা মোকাবিলা করতে প্রস্তুত।
মামলা দায়েরের পর এক বিবৃতিতে মেগানের স্বামী প্রিন্স হ্যারি জানিয়েছেন, তারা মামলা করতে বাধ্য হয়েছেন। কারণ ব্যক্তিগত চিঠি প্রকাশ করে তাদের সঙ্গে ‘নিষ্ঠুর প্রতারণা’ করা হয়েছে। প্রিন্স হ্যারি আরও বলেন, আমি এবং আমার স্ত্রী ক্ষমতাশালী শক্তির শিকার হতে যাচ্ছি।
জানা যায়, ২০১৮ সালে বিয়ের পরপরই মেগান তার বাবাকে চিঠিটি লেখেন। এই চিঠি প্রকাশের পরপরই বেশ চটেছে রাজপরিবার। রাজপরিবারের এই মামলা নিয়ে কাজ করা আইন পরামর্শ কেন্দ্র সিলিংস জানিয়েছে, চিঠি প্রকাশের মধ্য দিয়ে পত্রিকাটি একটি মিথ্যা মানহানিকর প্রচারণা চালিয়েছে। তারা ব্যক্তিগত তথ্যের অপব্যবহার, কপিরাইট আইনের লঙ্ঘন এবং ডাটা প্রটেকশন অ্যাক্ট-২০১৮ ভঙ্গের দায়ে মেইল অন সানডে এবং এর মূল প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে অভিযোগ দিয়েছে।
এ ব্যাপারে ডেইলি মিররের সাবেক সম্পাদক এবং গার্ডিয়ানের কলাম লেখক রয় গ্রিনস্লেড বলেন, রাজপরিবার হয়ত মামলায় জিতবে কিন্তু একটি পত্রিকার বিরুদ্ধে মামলা করে সংবাদমাধ্যমের ওপর আক্রমণের ঝুঁকি নিয়েছেন প্রিন্স হ্যারি।
চলতি বছরের শুরুর দিকে ট্যাবলয়েডটি মেগানের হাতে লেখা একটি চিঠি প্রকাশ করে, যেটি তিনি তাঁর বাবা টমাস মার্কেলকে পাঠিয়েছিলেন। চিঠিতে তিনি বাবার সঙ্গে তার ভেঙে পড়া সম্পর্ক এবং ট্যাবলয়েড গণমাধ্যমের সঙ্গে বাবার যোগাযোগের কারণে সৃষ্ট মনোবেদনার কথা জানান। মেয়ের লেখা সেই চিঠিটিও মেইল অন সানডেকে দিয়েছেন টমাস মার্কেল।

Leave a Reply

Back to top button
Close