Doctor Tips

পিরিয়ডের সময় যোনিতে ব্যথা কমানোর উপায়

: পিরিয়ডের সময় এলেই সবচেয়ে বেশি ভয় থাকে ব্যাথা নিয়ে। অনেকেই ভোগেন ডিসমেনোরিয়ায়। তলপেটে প্রচণ্ড ব্যথা ছড়িয়ে পড়ে কোমর, ঊরু ও পা পর্যন্ত। এমনকি স্তনেও ব্যাথা হয় অনেকের। রক্তক্ষরণের চেয়ে এই ব্যাথা কাবু দেয় মহিলাদের।    ১২-৭২ ঘণ্টা পর্যন্ত স্থায়ী হয় সেই ব্যথা। অনেক মহিলা ঋতুস্রাবের সময় যোনিতে ব্যথা অনুভব করেন। যা জরায়ুর সংকোচনের কারণে ঘটে থাকে। এই ব্যথা কমাতে 

 ঋতুস্রাবের সময় যোনি ব্যথা বন্ধ করার উপায়

  • স্নান করুন নিয়মিতভাবে। সেই রুটিনে পরিবর্তন আনবেন না। যদি যোনিতে ব্যথা অনুভব করেন এর অর্থ আপনার আরও বেশিবার রক্তপাত হবে। উষ্ণ বা গরম জল ব্যবহার করে আপনার যোনি পরিষ্কার করুন নিয়মিত। এতে আরাম পাবেন। 
  • ঘন ঘন প্যাড বা ট্যাম্পন পরিবর্তন করুন। প্রতি দুই ঘন্টা পর প্যাড বা ট্যাম্পন পরীক্ষা করুন এবং কমপক্ষে প্রতি ৪-৬ ঘন্টা পর পরিবর্তন করুন। 
  •  মাসিকের সময় ব্যবহারের জন্য বিশেষ যোনি ওয়াইপগুলি কিনুন। এই বিশেষ টিস্যুগুলি ত্বককে প্রশান্ত করবে এবং ঠাণ্ডা ভাব দেবে।
  • যদি এই নির্দিষ্ট টিস্যুতে জ্বালা হয়, তা অবিলম্বে এটি ব্যবহার বন্ধ করুন। যোনির ভিতের টিস্যু প্রবেশ করাবেন না। 
  • ওষুধ খাওয়ার জন্য ডাক্তারের সঙ্গে পরামর্শ নিন। দোকানে বলে ওষুধ ( পেইন কিলার) কিনবেন না। 
  • যদি যোনিতে ব্যথা হয় তবে এই সময় যৌন মিলন করবেন না। টাইট জিন্স বা প্যান্ট পরা থেকে বিরত থাকুন। অনেকক্ষণ চেয়ারে একটানা বসে থাকবেন না। সাইকেলিংও করবেন না। 
  • এছাড়া গরম সেক দিতে পারেন। এছাড়া পিরিয়ডের ব্যথার সময় তলপেটে কয়েক ফোঁটা ল্যাভেন্ডার তেল মালিশ করুন। ১০- ১৫ মিনিটের মধ্যে এটি আপনার ব্যথা কমিয়ে দেবে অনেকখানি। 
  •  দৈনিক কমপক্ষে সাত-আট ঘণ্টা ঘুম চাই। * পর্যাপ্ত জল খান। বিভিন্ন ধরনের শরবত, ফলের রস, আদা-লেবু-পুদিনা পাতাযুক্ত চা পান করুন। * মানসিক চাপ থেকে দূরে থাকুন। * পুষ্টিকর খাবার খান। * অতিরিক্ত চিনি-লবণযুক্ত খাবার, ক্যাফেইন, অ্যালকোহল, তামাক ইত্যাদি দূরে থাকুন। * প্রতিদিন সকালের রোদ লাগান শরীরে।

Back to top button