প্রযুক্তির খবর

প্যারিসে রহস্যময় জীবের সন্ধান!

বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি ডেস্ক : ফ্রান্সের প্রাণী বিজ্ঞানীরা রহস্যময় এক জীবের সন্ধান পেয়েছেন। দেখতে হলুদ ছত্রাকের মতো হলেও এর আচার-আচরণ ও স্বভাব-চরিত্র প্রাণীদের মতোই! নতুন আবিষ্কৃত এ জীবটিকে নিয়ে বিজ্ঞানীরা রীতিমতো বিভ্রান্তিতে পড়ে গেছেন। এটি ফাংগাস বা ছত্রাক কি না, বিজ্ঞানীরা নিশ্চিত করতে পারছেন না। তবে, নিশ্চিত হওয়া গিয়েছে যে, এটি উদ্ভিদ নয়। আবার সব দিক বিবেচনা করে, ‘প্রাণী’ বলেও চিহ্নিত করা যাচ্ছে না। আবিষ্কর্তারা রহস্যজনক এই জীবটির নাম দিয়েছেন ‘ব্লব’।

প্যারিস চিড়িয়াখানা কর্তৃপক্ষ সম্প্রতি প্রকাশ্যে এনেছে রহস্যময় এই জীবটিকে। বাহ্যিক গড়নে এটি মাশরুমের মতো কিন্তু অভ্যন্তরে প্রাণীসদৃশ। বিশ্বে আর কোথাও ব্লবের পরিজনেরা আছে কি না, জানা নেই। তবে, ‘ব্লব’ সম্পর্কে বিজ্ঞানীরা এখনও পর্যন্ত যতটুকু জেনেছেন, তাতে তারা আক্ষরিক অর্থেই বিস্মিত। দীর্ঘ পর্যবেক্ষণে বিজ্ঞানীরা জানিয়েছেন, এককোষী জীবটির ‘মস্তিষ্ক’ বলে কিছু না থাকলেও শেখার ক্ষমতা রয়েছে! চোখ নেই, কিন্তু চারপাশে কিছু থাকলে তার অস্তিত্ব টের পায়। মুখ ও পেটও না থাকলেও খাবার চিনতে ও খেয়ে হজম করতে পারে ব্লব। বিস্ময়ের আরো আছে! পা নেই, ডানাও নেই। তবে, নিজের মতো করে চলাফেরা করতে পারে আজব এই এককোষী জীবটি। কেটে দু’টুকরো করে ফেললেও কিছু যায় আসে না। বিজ্ঞানীরা দেখেছেন, মাত্র ২ মিনিটের মধ্যে পূর্বাবস্থায় ফিরে আসে। বিজ্ঞানীদের সবথেকে বেশি যেটা আশ্চর্য করেছে, তা হল, ব্লবের প্রায় ৭২০ ধরনের ‘সেক্স’ রয়েছে।
প্যারিস মিউজিয়াম অফ ন্যাচরাল হিস্ট্রির ডিরেক্টর ডেভিড ব্রুনো, এই জীবটিকে ‘প্রকৃতির রহস্য’ বলে উল্লেখ করে জানান, ‘একটি ব্লব যা শেখে, অপর জনের মধ্যে সেই বার্তা পৌঁছে দেয়।’

ইয়াং স্টিভ ম্যাককুইন অভিনীত ১৯৫৮ সালের সায়েন্স-ফিকশান হরর বি-মুভি ‘এলিয়েন দ্য ব্লব’ এর নামানুসারে এই এককোষী জীবটির নাম রাখা হয়েছে ব্লব। প্যারিস জুওলজিক্যাল পার্কে শনিবার থেকে সর্বসাধারণের জন্য এই জীবটি প্রদর্শিত হচ্ছে। সূত্র: দ্য গার্ডিয়ান।

আগাম বার্তা/এসআই

শেয়ার করুন

আপনি আরও যা পড়তে পারেন

Leave a Reply

Back to top button
Close