প্রযুক্তির খবর

মহাশূন্যে হাঁটাহাঁটি করা বিশ্বের প্রথম নারী দলের ইতিহাস সৃষ্টি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: পৃথিবীর অনেক ওপরে শুক্রবার বৈদ্যুতিক সংযোগের ভাঙা অংশ মেরামতের জন্য আন্তর্জাতিক মহাকাশ স্টেশন থেকে বেরিয়ে ইতিহাস সৃষ্টি করেছে মহাশূন্যে হাঁটা বা স্পেসওয়াক করা বিশ্বের প্রথম নারী দল। খবর এপি ও ইউএনবি’র।
মহাকাশ স্টেশন থেকে এক এক করে বের হন নাসার নভোচারী ক্রিস্টিনা কোচ এবং জেসিকা মেইর। যার মাধ্যমে মহাশূন্যে হাঁটাহাঁটির অর্ধ-শতাব্দীর ইতিহাসে প্রথমবারের মতো কোনো পুরুষ সঙ্গী ছাড়াই কোনো নারী স্টেশন থেকে বাইরে আসেন।
প্রথম আমেরিকান নারী হিসেবে ক্যাথি সুলিভান ৩৫ বছর আগে মহাশূন্যে হেঁটেছিলেন।

নাসার কর্মকর্তা এবং অনেক নারী কোচ ও মেইরকে অভিনন্দন জানিয়েছেন। সেই সাথে অনেকে আশা প্রকাশ করেছেন যে ভবিষ্যতে এটি নিয়মিত কাজে পরিণত হবে।
নাসা মূলত গত বসন্তে শুধু নারীদের নিয়ে মহাশূন্যে হাঁটাহাঁটি চালাতে চেয়েছিল। কিন্তু তখন যথেষ্ট পরিমাণে মাঝারি-আকারের পোশাক প্রস্তুত ছিল না।
কোচ ও মেইরের আগামী সপ্তাহে মহাশূন্যে হেঁটে আরও নতুন ব্যাটারি বসানোর কথা ছিল। কিন্তু একটি যন্ত্র নষ্ট হয়ে যাওয়ায় তিন দিন আগেই তাদের মহাশূন্যে বের হওয়ার ঝুঁকিটি নিতে হয়। তাদের দরকার হয়েছিল গত সপ্তাহে কোচ ও অ্যান্ড্রু মরগানের বসানো তিনটি নতুন ব্যাটারির মধ্যে একটির পুরনো চার্জার বদল করা।

শুক্রবার ছিল মেইরের জন্য প্রথম মহাশূন্যে হাঁটা। তিনি ২২৮তম ব্যক্তি এবং ১৫তম নারী হিসেবে মহাশূন্যে হেঁটেছেন। অন্যদিকে, কোচ হেঁটেছেন চতুর্থবারের মতো। তিনি মহাকাশ স্টেশনে সপ্তম মাস অতিক্রম করছেন। পুরো ১১ মাসের মিশন সম্পন্ন করলে তিনি একজন নারীর পক্ষে মহাকাশ স্টেশনে সবচেয়ে দীর্ঘ সময় অবস্থানের ইতিহাস তৈরি করবেন।

আগামবার্তা/ডেস্ক

শেয়ার করুন

আপনি আরও যা পড়তে পারেন

Leave a Reply

Back to top button
Close