Bangladesh

মালিবাগে বৃদ্ধাকে নির্যাতনের ঘটনার রহস্য উদঘাটন

: রাজধানীর মালিবাগে গৃহকর্মী কর্তৃক বৃদ্ধাকে নির্যাতনের ঘটনায় গৃহকর্মী রেখা আকতার দীর্ঘ এক বছরের বেশি সময় ধরে ভিকটিমের বাসায় গৃহ-পরিচারিকা হিসেবে কাজ করে আসছিলেন। সম্প্রতি এই গৃহকর্মীর স্বামী এরশাদ দ্বিতীয় বিয়ে করেন। দ্বিতীয় বিয়ের পর টাকার জন্য তিনি গৃহকর্মী রেখা আকতারকে চাপ প্রয়োগ করেন। এরশাদের প্ররোচনায় প্রলুব্ধ হয়ে গৃহকর্মী রেখা আকতার ভিকটিমকে মারধর করে টাকা ও স্বর্ণালংকার নিয়ে পালিয়ে যান।

বৃহস্পতিবার বিকালে ডিএমপি মিডিয়া সেন্টারে আয়োজিত প্রেস ব্রিফিংয়ে এসব কথা বলেন মিডিয়া অ্যান্ড পাবলিক রিলেশন্স বিভাগের উপ-পুলিশ কমিশনার মো. ওয়ালিদ হোসেন।

গৃহকর্মী কর্তৃক বৃদ্ধাকে নির্যাতনের ঘটনায় ২ জনকে গ্রেপ্তার করেছে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) শাহজাহানপুর থানা পুলিশ।

গ্রেপ্তাররা হলেন গৃহকর্মী রেখা আকতার ও তার স্বামী এরশাদ। এসময় তাদের কাছ থেকে টাকা ও স্বর্ণালংকার উদ্ধার করা হয়।

বৃহস্পতিবার ভোরে ঠাকুরগাঁও জেলার রাণীশংকৈল থানার কাশিপুরের চিকন মাটিয়া মধ্যপাড়ায় অভিযান চালিয়ে গৃহকর্মী রেখা আকতারকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। এ ঘটনায় পরে গৃহকর্মীর স্বামী এরশাদকে রাজধানীর উত্তর বাসাবো এলাকা থেকে গ্রেপ্তার করা হয়।

ওয়ালিদ হোসেন বলেন, মামলার অভিযোগকারী গত ১৭ জানুয়ারি রাজধানীর মালিবাগের নিজ বাসায় তার বোন, বৃদ্ধ মা (ভিকটিম) ও গৃহকর্মী রেখা আকতারকে রেখে ব্যক্তিগত কাজে বরিশাল যান। বাসায় রেখে যাওয়া অভিযোগকারীর বোন পরেরদিন ১৮ জানুয়ারি সকালে ব্যাংকিং কাজে বাসার বাইরে যায়।

এই সুযোগে গৃহকর্মী রেখা আকতার ভিকটিমকে একা পেয়ে তাকে লোহার রড দিয়ে বেদম মারপিট করে গুরুতর জখম করেন। এরপর গৃহকর্মী বাসা থেকে নগদ টাকা, স্বর্ণালংকার, টেলিভিশনসহ আনুমানিক ২১ লক্ষ টাকার মালামাল চুরি করে পালিয়ে যান। যাওয়ার সময় ভিকটিমকে ঘরের মধ্যে তালাবদ্ধ করে রেখে যান। এ ঘটনায় শাহজাহানপুর থানায় মামলা রুজু হয়েছে।

সূত্রঃ zoombangla

Back to top button