Life Style

শুধু পুষ্টিগুণে নয়, রূপচর্চাতেও কামাল গাজরের

: পুষ্টিগুণে সমৃদ্ধ গাজর কিন্তু রূপচর্চার উপাদান হিসেবেও কম নয়। চোখ, দাঁত, ত্বক ও চুলের জন্য যথেষ্ট উপকারী এটি। 
ত্বকের যত্ন নিন

জিন, হরমোন ও পরিবেশ—মোটামুটি এই তিন কারণেই আমাদের ত্বক শুষ্ক হয়। এই শুষ্ক ত্বকের জন্য গাজর আদর্শ। পটাশিয়ামসমৃদ্ধ গাজর ত্বকের ভেতরে ঢুকে একে ভেতর থেকে আর্দ্র করে তোলে। এ জন্য একটি ফেস মাস্কও ব্যবহার করা চলে। একটি গাজর ভাল করে পেস্ট করে এতে দুধ ও মধু মিশিয়ে মাস্কটি তৈরি করা যায়। সপ্তাহে তিন দিন ব্যবহার করলে ত্বকের শুষ্কতা কমে আসবে।
আরও পড়ুন: খিদে পেলেই চা নয়, পান করুন মেপে, পরামর্শ নিউট্রিশনিস্টদের

অ্যান্টি-এজিং মাস্ক
গাজর অ্যান্টিঅক্সিডেন্টে ভরপুর। এতে রয়েছে ভিটামিন সি, যা কোলাজেনের উৎপাদন বাড়িয়ে ত্বকের বয়সের গতিতে লাগাম টেনে ধরে। ছোট সাইজের একটি গাজরের পেস্টে এক টেবিল চামচ জলপাই বা নারকেল বা আমন্ড তেল মিশিয়ে ত্বকে লাগালে উপকার মিলবে। মাস্কটি ১৫ থেকে ২০ মিনিট রেখে অল্প গরম জল দিয়ে ধুয়ে ফেলতে হবে।
গাজরে চুল তাজা
চুলের সমস্যা সমাধানেও গাজর কার্যকর। এর ভিটামিন আর খনিজ উপাদান চুলের গোড়া মজবুত করে। গাজরের ভিটামিন এ এবং ই মাথার তালুতে রক্তসঞ্চালন বাড়িয়ে নতুন চুল গজাতেও সহায়তা করে। এ জন্য চুলে লাগাতে পারেন গাজরের তেল। বানানোও সহজ। গ্রেট করা গাজর দেড় কাপ জলপাই তেলে মিশিয়ে এক সপ্তাহ ঠান্ডা ও অন্ধকার জায়গায় রাখতে হবে। পরে ছেঁকে পরিষ্কার পাত্রে আলাদা করে রেখে দিলে অনেক দিন ধরে এটি ব্যবহার করা চলবে।
তা হলে আর কী? এই হালকা শীতে শুধু গাজরের মেনু না খেয়ে গাজর দিয়ে কিঞ্চিৎ রূপচর্চাও করে নিন।
আরও পড়ুন: মা হতে চাইছেন? পুষ্টি নিয়ে তাহলে একটু ভাবুন

Back to top button