Life Style

সন্তানের জন্ম দেওয়ার পর রোগা হতে স্তন্যপান করান

: সন্তান জন্ম দেওয়ার মোটা হয়ে গিয়েছেন? রোগা হতে সন্তানকে স্তন্যপান করান। তাতেই কমবে ওজন। কমবেশি সকলেরই জানা, শিশুকে স্তন্যপন করানো অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। সন্তানের ছয় মাস বয়স হওয়া পর্যন্ত টানা মাতৃদুগ্ধ পান, সুচনায় যা তাঁর স্বাস্থ্যের জন্যও খুবই উপকারি। অসুখ বিসুখ থেকে তাঁকে দুরে রাখতে এবং ইমিউনিটি বাড়াতে সাহায্য করবে। 
কিন্তু জানেন কি সন্তানকে স্তন্যপান করানো মায়ের শরীরের জন্য কতটা উপকারি? মনে রাখবেন, গর্ভাবস্থায় মহিলাদের যে ওজন বেড়ে যায়, তা নিয়ন্ত্রণে আসবে সন্তানকে স্তন্যপান করিয়ে। তাই বিশেষজ্ঞদের পরামর্শ, শরীরের গঠনের দিকে নজর দিতে একটা সময়ের পর স্তন্যপান না করানোর সিদ্ধান্ত সম্পূর্ণ সঠিক নয়। 

আরও পড়ুন: সকালে এককাপ আয়ুর্বেদিক পাচন, Work From Home এও ঝড়বে মেদ
সন্তানকে স্তন্যপান আপনাকে রোগা করার প্রক্রিয়াকে অনেকটা সহজ করে দেবে। কারণ, শরীরে দুধ তৈরি হতে প্রতিদিন ৫০০-৭০০ ক্যালোরি বার্ন হয়। অন্যদিকে, সন্তানের স্বাস্থ্যের কথা ভেবে এই সময় জাঙ্ক ফুড, ভুলভাল খাবার খাওয়া থেকে বিরত থাকেন মা। দুধ তৈরিতে ফল খেতে হয় এইসময়। সব মিলিয়ে প্রায় বছর খানেকের মধ্যে আগের চেহারায় ফিরে যেতে পারবেন মা। তাই নির্দিষ্ট সময় পর্যন্ত সন্তানকে স্তন্যপান  করানো জারি রাখার পরামর্শ দিচ্ছেন বিশেষজ্ঞরা।   
আরও পড়ুন:সাবধান! ভুলেও কান খোঁচাতে কটন বাড ব্যবহার করবেন না, জেনে নিন বিশদে
 

Back to top button