Technology

সবচেয়ে সস্তা, ৪৭ টাকায় আনলিমিটেড কলিং সহ একগুচ্ছ সুবিধা

ফাইল ছবি

এই মুহূর্তে দেশের গ্রাহকদের কাছে অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হল মোবাইল নেটওয়ার্ক। আর গ্রাহকদের সুবিধা দেওয়ার জন্য সকল কোম্পানির তরফে ক্রেতাদের জন্য নিয়ে আসা হয়েছে একের পর এক বিভিন্ন ধরনের প্ল্যান। দীর্ঘ মেয়াদি প্ল্যানের পাশপাশি বিভিন্ন কোম্পানির তরফে ক্রেতাদের জন্য নিয়ে আসা হয়েছে এক গুচ্ছ স্বল্পমেয়াদি প্ল্যান। আর এবারে জানা গিয়েছে বিএসএনএলের তরফে নিয়ে আসা হয়েছে এক নতুন সুবিধা।

সরকারি এই সংস্থা বরাবর ক্রেতাদের জন্য বাজারে নিয়ে এসেছে একের পর এক প্ল্যান। এমনকি প্রয়োজনীয় সময়ে তাদের তরফে নেওয়া হয়েছে একাধিক পদক্ষেপ। করোনা পরবর্তী সময়ে সাধারণ মানুষের জন্য একাধিক প্ল্যানের মেয়াদ বৃদ্ধি করা হয়েছে। তার সঙ্গেই বেশ কিছু নতুন প্ল্যানও বাজারে আনা হয়েছে। যা সুবিধা দিয়েছে সব ধরনের ক্রেতাদের। আর এবারে গ্রাহকদের জন্য কম দামের মধ্যে এক আকর্ষণীয় প্ল্যান নিয়ে এল বিএসএনএল। এই মুহূর্তে একাধিক ব্যক্তিদের কাছে অল্প বাজেটের প্ল্যান যথেষ্ট গুরুত্বপূর্ণ। আর খুব অল্প কোম্পানির তরফে এই মুহূর্তে বাজারে আনা হয়েছে একাধিক প্ল্যান। সেই কথা মাথাতে রেখে বিএসএনএলের তরফে আনা হয়েছে ৪৭ টাকার প্ল্যান।

এই প্ল্যানে রয়েছে আন লিমিটেড কলের সুবিধা। তার সঙ্গে রয়েছে ডেটা এবং মেসেজের সুবিধাও। এই প্ল্যানের ভ্যালিডিটি রয়েছে ২৮ দিনের। মনে করা হচ্ছে গ্রাহকদের কাছে নিজেদের গ্রহনযোগ্যতা বাড়ানোর জন্য এবারে এই পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে বিএসএনএলের তরফে। এই মুহূর্তে ভারতের বাজারে নেটওয়ার্কিং কোম্পানির ক্ষেত্রে যথেষ্ট গুরুত্বপূর্ণ বিএসএনএল। তবে জিও আসার পরে কিছুটা পিছু হতলেও নতুন ভাবে গ্রাহকদের আকর্ষণের জন্য তাদের তরফে আপ্রাণ চেষ্টা করা হচ্ছে। এমনকি বেশ কিছু পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছে তাদের তরফে। আর তার জেরেই যথেষ্ট সুবিধা পাবেন গ্রাহকেরা এমনটা মনে করা হচ্ছে। এর আগেও বিএসএনএলের তরফে ভারতের বাজারে আনা হয়েছে একাধিক প্ল্যান। তবে এই নতুন প্ল্যান নিয়ে আসার ফলে সুবিধা হবে গ্রাহকদের।

লাল-নীল-গেরুয়া…! ‘রঙ’ ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা ‘খাচ্ছে’? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম ‘সংবাদ’!

‘ব্রেকিং’ আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের।

কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে ‘রঙ’ লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে ‘ফেক’ তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই ‘ফ্রি’ নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.
হ্যাঁ, আমি অনুদান করতে ইচ্ছুক >

জীবে প্রেম কি আদৌ থাকছে? কথা বলবেন বন্যপ্রাণ বিশেষজ্ঞ অর্ক সরকার I।

Back to top button