Saidpurসৈয়দপুর

সৈয়দপুরে উদ্ধার হওয়া শিশুকে তার ভগ্নিপতিই অপহরণ করেছিল! – আগাম বার্তা

আসাদুজ্জামান সুজন, সিনিয়র নিউজরুম এডিটর- রংপুরের তাজহাট থেকে পাঁচ বছরের এক শিশুকে অপহরণ ও মুক্তিপণ দাবির অভিযোগে ভগ্নিপতিসহ দুইজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। একইসঙ্গে অক্ষত অবস্থায় শিশুটিকেও উদ্ধার করা হয়েছে।

সোমবার (৩ জুন) রংপুর মহানগর পুলিশ কমিশনার আব্দুল আলীম তার কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে একথা জানান।

আব্দুল আলীম বলেন, নীলফারীর সৈয়দপুর উপজেলায় অভিযান চালিয়ে অপহরণ হওয়া শিশু আশিককে (৫) মদিনা মোড় এলাকা থেকে উদ্ধার করা হয়েছে।

“এই ঘটনায় জড়িত শাহিন মিয়া এবং শিশুটির দুলাভাই রনিকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে উভয়েই আশিককে অপহরণের কথা স্বীকার করেছেন।”

শাহিন মিয়া (২০) নীলফামারীর সৈয়দপুরের কয়াগোলারহাট বসুনিয়াপাড়ার উমালু জাকিরের ছেলে ও শিশুটির দুলাভাই রনি ইসলাম (২৫) একই উপজেলার পুর্ব বেলপুকুর পাকাধারা গ্রামের শহিদুল ইসলামের ছেলে।

কমিশনার আলীম বলেন, চেতনানাশক প্রয়োগ করে শিশুটিকে অপহরণের পর সৈয়দপুর নিয়ে আটকে রেখে মুক্তিপণ দাবী করে অপহরণকারীরা। আশিককে উদ্ধারের পর অসুস্থ থাকায় তাকে রংপুর মেডিকেলে ভর্তি করা হয়েছে। সে এখন পুরোপুরি সুস্থ আছে। সোমবার দুপুরে শিশুটিকে বাবা-মার কাছে ফেরত দেওয়া হয়েছে বলে জানান তিনি।

প্রসঙ্গত, গত ১ জুন সন্ধ্যায় নগরীর তাজহাট থানার আলমনগর খেড়বাড়ি গ্রামের কালু মিয়া ৫ বছর বয়সী ছেলে আশিক নিখোঁজ হয়। পরে অনেক খোঁজা-খুজি করে তাকে না পেয়ে পিতা কালু মিয়া বাদী হয়ে অজ্ঞাতনামীয় ব্যক্তিদের আসামি করে মামলা দায়ের করেন। এরই মধ্যে অপহরণকারী চক্র শিশুটির পিতার কাছে এক লক্ষ টাকা দাবি করেন। টাকা না দিলে ওই শিশুকে হত্যা করারও হুমকি দেয়া অপহরণকারীরা।

এদিকে মামলার পরেই পুলিশ শিশুটিকে উদ্ধারে বিভিন্ন জায়গায় অভিযান পরিচালনা করে। পরে তথ্য প্রযুক্তির মাধ্যমে নীলফামারীর সৈয়দপুরের মদিনা মোড় থেকে শিশুটিকে উদ্ধার করে।

Leave a Reply

Back to top button
Close