International

হিন্দুদের রেশন নয়, লকডাউন চলাকালীন ঘোষণা পাকিস্তানে

করাচি: করোনার করাল গ্রাস গোটা বিশ্বে তীব্র সঙ্কটে ভুগছে গোটা বিশ্ব। এই মহামারী যেন যত তাড়াতাড়ি সম্ভব চলে যায়, এমনই প্রার্থনা চলছে বিশ্বজুড়ে। বিশ্বজুড়ে চলা ভয়ঙ্কর এই সংকটের আবহেই পাকিস্তানের বর্বর চেহারা ফের প্রকাশ্যে এল। করাচিতে লকডাউন চলাকালীন হিন্দুদের রেশন দেওয়া হবে না বলে সাফ জানাল পাক প্রশাসন।
করোনা সঙ্কটে ভুগছে গোটা বিশ্ব। পাকিস্তানে জারি লকডাউনের মধ্যে করাচি প্রশাসন হিন্দুদের রেশনে পণ্যসামগ্রী দেবে না বলে সাফ জানিয়ে দিয়েছে। করাচির রেহড়ি ঘোথে হাজার হাজার গরিব মানুষ খাদ্যদ্রব্য নেওয়া জন্য গেছিলেন। কিন্তু সেখানে গিয়ে হিন্দুরা খালি হাতে ফেরত আসেন। তাঁদের মুখের উপর স্পষ্ট বলে দেওয়া হয় যে, এই রেশন শুধু মুসলিমদের জন্য। সেখানকার সিন্ধ প্রশাসন স্থানীয় গরিব মজদুরদের রেশন বণ্টন করার ব্যবস্থা করেছিল।
করাচির হিন্দুদের বলা হয়েছে যে, তাঁদের খাবার দেওয়া হবেনা। কারণ সেখানে বণ্টন হওয়া রেশন শুধু এলাকার মুসলিম সম্প্রদায়ের মানুষের জন্য।

সংবাদসংস্থা এএনআই-তে প্রকাশিত তথ্য অনুযায়ী, করাচিতে সংখ্যালঘু হিন্দুরা এখন গভীর খাদ্য সঙ্কটের সম্মুখীন হয়েছেন। পাকিস্থানেও থাবা বসিয়েছে মারণ করোনা। সেখানে এখনো পর্যন্ত ১ হাজার ৫০০ এর বেশি মানুষ এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন।
পাকিস্থানে করোনা আক্রান্তদের পাক অধিকৃত কাশ্মীরে পাঠাচ্ছে পাক প্রশাসন। করোনা আক্রান্তদের প্রয়োজনীয় চিকিৎসা পাকিস্থানে করা হচ্ছে না বলে অভিযোগ উঠেছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close