Entrepreneur

হোয়াটসঅ্যাপে শাড়ি বিক্রি করে উদ্যোক্তা

উদ্যোক্তা – শানমুগ প্রিয়া

আমাদের জীবনযাপনকে পুরোপুরি বদলে দিয়েছে স্মার্টফোন। স্মার্টফোনগুলোর সাথে এসেছে সোশ্যাল মিডিয়া যা আমরা সবাই ব্যবহার করি, দৈনন্দিন জীবনের যোগাযোগ রক্ষার্থে। তবে এই সোশ্যাল মিডিয়া ব্যবহার করে ব্যবসা পরিচালনা করেছেন এবং সফলতা অর্জন করে দেখিয়েছেন শানমুগ প্রিয়া। আসুন জেনে নেই তার সেই গল্পটি:

প্রিয়ার শাশুড়ি মানুষের ঘরে ঘরে গিয়ে শাড়ি বিক্রি করতেন। তিনি প্রিয়ার অনুপ্রেরণা ছিলেন কিন্তু যখন প্রিয়ার ছেলের বয়স তিন মাস তখন তিনি মারা যান। সেই সময়ে তাকে চাকরিটা ছাড়তে হয়েছিল এবং তার পরিবার  আবার অতিরিক্ত উপার্জন করার প্রয়োজনীয়তা অনুভব করেতো। প্রিয়া তখন তার শাশুড়ির কাজটি চালিয়ে যাওয়ার কথা চিন্তা করেন এবং বিক্রি করার জন্য এক ব্যাগ শাড়িও কিনেন। যে কোনো নতুন ব্যবসায়ইর মত প্রাথমিকভাবে ক্রেতা খুব কম ছিল এবং লোকেরা তাকে নানাভাবে বিরক্ত করতো। কেন তিনি এই কাজ করছেন?

প্রথম দিকে কেবল পরিবার ও বন্ধুরা তার কাছ থেকে শাড়ি কিনত। তবে আস্তে আস্তে তিনি হোয়াটসঅ্যাপের মাধ্যমে বিশ্বস্ত গ্রাহক তৈরি করতে শুরু করেছিলেন। তিনি জানতেন না যে মহিলারা তার কাছ থেকে কখন এই সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে শাড়ি কিনবে। তবে এটা কিস্তু তিনি সম্ভব করেছিলেন। তিনি প্রচুর পরিমাণে ক্রেতা একত্রিত করেছিলেন হোয়াটসঅ্যাপের মাধ্যমে। এখানে সবাই ছিল প্রায় সম্ভাব্য ক্রেতা, তাই তার পণ্যও খুব ভালো বিক্রি হত। সে একদিনে ৫০-৮০ টি শাড়ি বিক্রি করতে পারেন হোয়াটসঅ্যাপের মাধ্যমে।

তিনি বলেন, বর্তমানে তিনি প্রায় ১১ টি হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপ, কয়েকটি টেলিগ্রাম গ্রুপ এবং ফেসবুক পেজ পরিচালনা করছেন। তার বাড়ির নিচতলাটি গোডাউনে পরিণত করেছেন। সময় মত বিক্রির জন্য বিভিন্ন কুরিয়ার সংস্থার সাথে চুক্তিবদ্ধ হয়েছেন। গ্রাহকদের সাথে বন্ধুত্বপূর্ণ মনোভব এবং ভালো মানের শাড়ির জন্য এই সফলতা এসেছে বলে তিনি মনে করেন। এছাড়াও তিনি সুসম্পর্ক বজায় রাখতে ভুলে যাননি খুচরা এবং পাইকারী ব্যবসায়ীদের সাথে।

প্রিয়া বলেন, কখনও কখনও তারা গ্রাহকের কাছ থেকে অর্থ না পাওয়ার জন্য আমাদের অর্থ প্রদান করতে সক্ষম হয় না, তাদের এই  বিষয়টি  আমি সাধারণভাবে নিয়ে থাকি  এবং পণ্য লেনদেন চলমান রাখি। এর কারণেই হয়তবা লোকেরা আমার কাছে আসে এবং প্রশংসা করে।  শুধু এই হোয়াটসঅ্যাপ ব্যবহার করে তিন বছরে, তার সংস্থা প্রায় ৪,০০,০০০ ডলার মূল্যের শাড়ি বিক্রি করেছে এবং এখন এটিকে একটি সফল ব্যবসায়ে পরিণত করেছেন!

তিনি এখন অনেক মহিলার জন্য অনুপ্রেরণা যারা তাঁর অধীনে কাজ করছেন।  শানমুগ প্রিয়া সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ব্যবহার করে আজ একজন   সফল ব্যবসায়ী ও উদ্যেক্তা। তথ্য-প্রযুক্তি ব্যবহারের মাধ্যমে এটা সম্ভব হয়েছে।

হৃদয় সম্রাট

Leave a Reply

Back to top button
Close