Technology

১২ জিবি র‍্যাম! বাজারে এল oppo reno 5pro 5g

চিনের বাজারে মোবাইল কোম্পানি গুলির মধ্যে অত্যন্ত জনপ্রিয় oopo. শুধু মাত্র চিন ই নয় আন্তর্জাতিক বাজারেও যথেষ্ট জনপ্রিয় এই ব্র্যান্ড। ইতিমধ্যে তারা বাজারে নিয়ে এসেছেণ একের পর এক মডেল। যা জনপ্রিয় হয়েছে ক্রেতাদের কাছে। আর এবারে গ্রাহকদের কথা ভেবে তাদের তরফে নিয়ে আসা হল oppo reno 5pro 5g। এই ফোন নিয়ে গ্রাহকদের মধ্যে রয়েছে তীব্র আকর্ষণ।

জানা গিয়েছে ইতিমধ্যে এই ফোন লঞ্চ করা হয়েছে চিনের বাজারে। তবে আন্তর্জাতিক বাজারে এই ফোন কবে লঞ্চ করা হবে তা এখনো জানা যায়নি। ইতিমধ্যে তারা নিয়ে এসেছে একাধিক নতুন সিরিজের ফোন। আর তা যথেষ্ট জনপ্রিয় হয়েছে ক্রেতাদের কাছে। তবে এবারে মনে করা হচ্ছে এই নতুন ফোন লঞ্চ করার ফলে সুবিধা পাবেন সাধারণ মানুষজন। এছাড়া জানা গিয়েছে এই ফোনে থাকবে একাধিক নতুন ফিচার। এছাড়া থাকবে উন্নত ক্যামেরার সুবিধাও।

জানা গিয়েছে, চিনের বাজারে এই ফোনের দাম রাখা হয়েছে cny 3999 । যা ভারতীয় অঙ্কে প্রায় ৪৫০০০ টাকার কাছাকাছি। এই দামে পাওয়া যাবে ৮ জিবি র‍্যাম +১২৮ জিবি স্টোরেজের সুবিধাও। তবে ১২ জিবি র‍্যাম +২৫৬ জিবি স্টোরেজের ক্ষেত্রে দাম হবে cny 4499। যা ভারতীয় অঙ্কে ৫০৭০০ টাকার কাছাকাছি। এই ফোনে থাকবে android 11 opareting সিস্টেমের সুবিধাও।

এছাড়া জানা গিয়েছে এই ফোনে থাকবে ৬.৬৫ ইঞ্চি ডিসপ্লের সুবিধা। এতে থাকবে octa core snapdragon 865 soc এর সুবিধাও। এই ফোনে থাকবে উন্নত ক্যামেরার সুবিধাও। এখন দেখার আন্তর্জাতিক বাজারে কবে লঞ্চ করা হয় এই ফোন। এতে থাকবে ৪৫০০ mah ব্যাটারির সুবিধা থাকবে বলেও জানা গিয়েছে।

লাল-নীল-গেরুয়া…! ‘রঙ’ ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা ‘খাচ্ছে’? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম ‘সংবাদ’!

‘ব্রেকিং’ আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের।

কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে ‘রঙ’ লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে ‘ফেক’ তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই ‘ফ্রি’ নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.
হ্যাঁ, আমি অনুদান করতে ইচ্ছুক >

অতিমারীর মধ্যে দেশি ব্র্যান্ডগুলি কতটা সমস্যার মধ্যে রয়েছে , তারাও কী ভাবছেন আগামী নিয়ে? জানাবেন ডঃ মহুল ব্রহ্ম।

Back to top button