বিনোদন

৯৬ কেজি ওজন ছিল, কী ভাবে এত ত্বন্বী হয়ে উঠলেন সারা আলি খান – আগাম বার্তা

মুম্বই- সারা আলি খানের ভক্তের সংখ্যা গুনে শেষ করা যাবে না। এখনও পর্যন্ত দুটি ছবিতে অভিনয় করে দর্শকদের মুগ্ধ করেছেন সারা আলি খান। তবে তাঁর সৌন্দর্যেও যে ভক্তরা মুগ্ধ তা আলাদা করে বলতে লাগে না। কিন্তু এক সময়ে এই সারাই একাধিক বার বিভিন্ন রকমের তির্যক মন্তব্যের শিকার হয়েছেন। তখন তাঁর ওজন ছিল ৯৬ কেজি। সেই সময়ে সারা পিসিওএস (পলিসিস্টিক ওভারিয়ান সিনড্রোম) রোগে ভুগছিলেন। কিন্তু এখন তাঁর ওজন ৪৬ কেজি।

৫০ কেজি ওজন কমাতে অনেক কাঠখড় পোড়াতে হয়েছে সারাকে। এক সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমের কাছে সারা জানিয়েছিলেন, তিনি পলিসিস্টিক ওভারিয়ান সিনড্রোমে ভুগছিলেন। হরমোন জনিত এই রোগের জন্যই মাত্রাতিরিক্ত ওজন বেড়ে যায় সারার। পিসিওএস-এর ফলে ওজন কমাতেও অনেক পরিশ্রম করতে হয়েছে সারাকে। সেই দুঃসময় কাটিয়ে সারা এখন সুস্থ।

পিসিওএস-এ এই মুহূর্তে বহু মহিলা আক্রান্ত। এর অন্যতম উপসর্গ হল মাত্রাতিরিক্ত ওজন বেড়ে যাওয়া। ওজন বাড়লে পিসিওএস আরও বেশি করে শরীরে জাঁকিয়ে বসে। তাই এই রোগে আক্রান্ত মহিলাদের ডায়েটের উপর গুরুত্ব দেওয়া প্রয়োজন। সারাও ওয়ার্কআউটের পাশাপাশি ডায়েটেও অনেক নিয়ম মেনে চলেছেন। জেনে নেওয়া যাক ওজন কমাতে সারা কেমন ডায়েট মেনে চলতেন-

১) চিকিৎসকরা সব সময়েই ভারী ব্রেকফাস্ট করার পরামর্শ দেন। লাঞ্চ বা ডিনারের চেয়ে এই খাবার তুলনামূলক ভাবে বেশি ভারী হওয়া উচিত। সারা আলি খান ব্রেক ফাস্টে খান ইডলি বা পাঁউরুটি। সঙ্গে ডিমের সাদা অংশ থাকে।

২) ওজন কমাতে লাঞ্চেও ফ্যাটহীন খাবার খেয়েছেন সারা। রুটির সঙ্গে ডাল, তরকারি ও স্যালাড খান। লাঞ্চের পরে কিছু ফল খান সারা।

৩) লাঞ্চ ও ডিনারের মাঝেও কিছু স্ন্যাক্স খাওয়া উচিত। সারা এই এখনও সন্ধের স্ন্যাকস হিসেবে সুজির উপমা খান।

৪) ডিনারে সবচেয়ে হালকা খাবার খাওয়া উচিত। ডিনারে সারা রুটির সঙ্গে কিছু সবুজ তরকারি খান।

 

Leave a Reply

Back to top button
Close