International

Wedding Cake: চার্লস-ডায়ানার বিয়ের কেকের টুকরা উঠতে চলেছে নিলামে

: কোথা থেকে কী ভাবে যে ইতিহাস ফুঁড়ে ওঠে কে জানে! না হলে ডায়ানার বিয়ের কেক এখন প্রকাশ্যে আসে!  
প্রিন্স চার্লস ও প্রিন্সেস ডায়ানার (Princess Diana and Prince Charles) বিয়ে হয়েছিল ১৯৮১ সালে। তাঁদের দুই সন্তান হয়েছে। বিবাহবিচ্ছেদও হয়েছে। এর পর প্রয়াত হয়েছেন যুবরানি ডায়ানা। চার্লস আবারও বিয়ে করে সংসারী হয়েছেন। তবে চার্লস ও ডায়ানাকে নিয়ে মানুষের আগ্রহ কমেনি। কমেনি যে, তার প্রমাণ, চার দশক পর এসে ওই বিয়ের কেকের একটি টুকরো নিলামে উঠছে!

আরও পড়ুন: Australia: মানুষ মানছেন না লকডাউন; রাস্তায় সেনা নামাল অস্ট্রেলিয়া
চার্লস-ডায়ানার রাজকীয় ওই বিয়েতে মোট ২৩টি কেক কাটা হয়েছিল। এর মধ্য থেকে একটি কেকের টুকরা নিলামে তুলছে ব্রিটিশ অকশনার Dominic Winter Auctions। সব কিছু ঠিকঠাক থাকলে ১১ অগস্ট কেকের টুকরোটির নিলাম হওয়ার কথা।

নিলাম সংস্থার পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, ৪০ বছর আগের রাজকীয় বিয়ের এই কেকটি সোনালি, লাল, নীল, সাদা ও রুপোলি রঙের মিশেলে বানানো হয়েছিল। এটি ৫ ফুট লম্বা ছিল, এর ওজন ছিল ২২৫ পাউন্ড। তবে যে টুকরাটির নিলাম হবে তার ওজন ২৮ আউন্সের মতো। 
কিন্তু এখন কী ভাবে মিলল এই রাজকীয় কেক? জানা গিয়েছে, রাজপরিবারের পক্ষ থেকে এটি পাঠানো হয়েছিল ময়রা স্মিথ (Moyra Smith) নামের এক ব্যক্তিকে। তিনি রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথের মায়ের অফিসে কাজ করতেন। ৪০ বছর ধরে স্মিথ পরিবার কেকের টুকরাটি প্লাস্টিকে মুড়ে টিনের কৌটায় সংরক্ষণ করে রেখেছেন। ২০০৮ সাল সেটি স্মিথ পরিবারের হাত থেকে নিলামকারী সংস্থার হাতে আসে। তবে তখনই এটা নিলামে তোলা হয়নি। আরও প্রায় ১৩ বছর পর কেকের টুকরাটি নিলামে তোলা হল। ন্যূনতম ২০০ পাউন্ড বা ২৭৮ ডলার থেকে এটির দাম শুরু হতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে।
নিলামকারী সংস্থার পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, ৪০ বছরের পুরোনো হলেও রাজকীয় বিয়ের কেকের এই টুকরা এখনও ভাল আছে। তবে প্রতিষ্ঠানটি পরিষ্কার করে দিয়েছে, কেকটি ভাল অবস্থায় আছে বলে এটা মোটেই খাওয়ার যোগ্য নেই।
(Zee 24 Ghanta App : দেশ, দুনিয়া, রাজ্য, কলকাতা, বিনোদন, খেলা, লাইফস্টাইল স্বাস্থ্য, প্রযুক্তির লেটেস্ট খবর পড়তে ডাউনলোড করুন Zee 24 Ghanta App)
আরও পড়ুন: Largest Mouth Gape: সবচেয়ে বড় ‘মুখে’ বিশ্বজয়

Back to top button